চোখের নিচের কালি দূর করা

অনেকে বলে থাকেন,রাত জাগার জন্যই নাকি চোখের নিচে কালি পড়ে থাকে। কথাটি সর্বাংশে সত্য নয়। কারণ অনেক সময় দেখা যায় শারীরিক বিভিন্ন কারণেও চোখের নিচে কালি পড়তে পারে। তবে রাত জাগার জন্য চোখের নিচে যে ধরনের কালি পড়ে তা দূর করা বেশ কষ্টকর। সুতরাং বেশি রাত জাগা ঠিক নয়। একে বারেই যখন খুব বেশি প্রয়োজন–বিশেষ করে পড়াশোনার জন্য অনেকেই রাত জাগতে হয়। তবে পড়াশোনার রুটিনটা যদি এমন ভাবে সেট করা যায়–যেন সেটা দিনের আলোতে কিংবা রাতের কোনো বিশেষ সময় পড়ার সময় ফিক্সড করা যায় তাহলে খুব ভালো হয়। চেষ্টা করতে হবে যাতে অন্তত সাত থেকে আট ঘণ্টা ঘুম হয়। সাধারণত ছয় থেকে সাত ঘণ্টা ঘুম হলে চোখের নিচের কালি পড়া বা কালি থাকলে তা দূর হয়ে যাবার সম্ভাবনা শতকরা ৮০ ভাগ। তবে যাদের চোখের নিচে কালি পড়েছে তারা বাজার থেকে বিভিন্ন লোশন বা অন্য কোন ক্রিম ব্যবহারের আগে নিচের উপাদান গুলো ব্যবহার করতে পারেন।

১। একটি বড় আকারের আল থেকে চোখের মাপের চেয়ে বড় আকারের দুই টুকরো slice করে কেটে নিন।

২। মাঝখানের কিছুটা অংশ বাদ দিয়ে দিন ছুরি দিয়ে।

৩। এবার একটি আরামদায়ক কুশনে আধশোয়া হয়ে থাকুন।তারপর দুই হাত দিয়ে দুটো slice ধরে আলতো করে চোখের উপর বসিয়ে দিন।

৪। চোখের উপর বসানোর পর মাঝখানের পাকা জায়গা যাতে ঠিক চোখের উপর থাকে সেদিকে লক্ষ্য রাখুন।

৫। এভাবে চোখের চারপাশে যাতে আলুর গোলাকার অংশটুকু স্পর্শ করতে পারে সেটা খেয়াল করুন।

৬। আলুর নিজস্ব অভিস্রবণ প্রক্রিয়ার কারণে উক্ত স্পর্শ করে থাকা অংশটুকু কিছুক্ষণের মধ্যেই বেজা বেজা অনুভূতি হবে। এ অবস্থায় বিশ মিনিট থাকুন।

৭। বিশ মিনিট পর আলুর টুকরো দুটো তুলে চোখ দুটো ঠান্ডা পরিষ্কার পানি দিয়ে আলতো করে ধুয়ে নিন।

বিশ্বাস করুন, এই প্রক্রিয়ায় শতকরা আশি ভাগ মানুষের চোখের নিচের কালো দাগ দূর হতে পারে। আলুর বদলে শশার টুকরো ব্যবহার করতে পারেন। তবে ডার্ক সার্কেল এর জন্য আলুর slice খুব বেশি উপকারী।

 

Check Also

পুরুষের গুণাগুণ বিচার

সর্বতােভাবে সুখী হয় সেই ব্যক্তিই যার কণ্ঠস্বর , বুদ্ধি ও নাভি গভীর । হয় । …