প্রাথমিক চিকিৎসা

জীবন রক্ষার জন্য জরুরি ভিত্তিতে কৃত্রিম শ্বাস-প্রশ্বাস প্রদানের ব্যবস্থা নিন। রক্তক্ষরণ বন্ধ করার জন্য আঘাতপ্রাপ্ত স্থানে উপরের দিকে হালকা ভাবে বাঁধন দিন। বেশি শক্ত করে বাদলে ধমনীর রক্ত প্রবাহ বন্ধ হয়ে সেই অংশের পরবর্তী সময়ে ক্ষতিকর অবস্থা সৃষ্টি হতে পারে। শুধু রক্তক্ষরণ বন্ধের জন্য পরিষ্কার কাপড় গজ ব্যান্ডেজ দিয়ে কিছুক্ষণ চেপে ধরলে রক্ত জমাট বেঁধে রক্ত ক্ষরণ হবে। বেশি রক্তপাত হলে তাৎক্ষণিকভাবে আই ভি ফ্লুইড দেওয়ার কথা ভুলে যাবেন না। হাসপাতালে পাঠিয়ে রক্ত পরিসঞ্চালনের আগ পর্যন্ত হূদযন্ত্রের স্বাভাবিক কর্মকান্ড চলমান রাখার জন্য আই ভি ফ্লুইড এর  বিকল্প নেই।

 

জীবন বাঁচাতে প্রাথমিক চিকিৎসাঃ- আক্রান্ত ব্যক্তির অবস্থা যাতে আরো খারাপের দিকে না যায় তার ব্যবস্থা করা প্রাথমিক চিকিৎসার মূল উদ্দেশ্য হওয়া উচিত। ক্ষতস্থান পরিষ্কার পানি অথবা নরমাল স্যালাইন দিয়ে দুয়ে গজ ব্যান্ডেজ অথবা পরিষ্কার কাপড়ে আবৃত করুন। হাড় ভেঙ্গে গেলে ভগ্ন অংশ নাডা ছাড়া সীমিত করার জন্য কাঠ বা বাঁশের টুকরো অংশ লাগিয়ে ব্যান্ডেজ এর সাহায্যে পেঁচিয়ে দিন। আক্রান্ত বা আঘাত প্রাপ্ত রোগীর সাহস যোগান। সমবেদনা প্রকাশ করুন। হাতের কাছে পাওয়া তাৎক্ষণিক চিকিৎসা দিন যদি প্রশিক্ষিত কারো জানা থাকে। ব্যথা প্রশমনের জন্য ব্যথানাশক ওষুধ দিন। বিশেষ যত্নের সাথে অবিলম্বে সরাসরি চিকিৎসা কেন্দ্র পৌঁছান।

Check Also

পুরুষের গুণাগুণ বিচার

সর্বতােভাবে সুখী হয় সেই ব্যক্তিই যার কণ্ঠস্বর , বুদ্ধি ও নাভি গভীর । হয় । …