প্রিটিকিনী রান্না প্রসঙ্গে কয়েকটি বিশেষ জরুরী কথা

১। প্রিটিকিন ডায়েট আহারিরা রাতারাতি লবণ খাওয়া ছেড়ে দিবেন না।ধীরে ধীরে লবণ গ্রহণের মাত্রা কমিয়ে অনুমোদিত পরিমাণে নিয়ে আসুন।

২। প্রিটিকিনী রান্নায় কোন কিছুই তেলে ভেজে নিতে হয় না,রান্না করতে সময় এবং খরচ দুটোই কম হয় একটি প্রেসার কুকার ও একটি নন স্টিক ফ্রাই পেন এজন্য বিশেষ প্রয়োজন।

৩। দই-টা এ রান্নায় প্রায়ই লাগে।বাড়িতে স্কিমড় মিল্ক এর দই করে নেবেন অথবা নিরুপায় হলে দোকানের টক দই ব্যবহার করবেন মিষ্টি দই প্রিটিকিনী নিষিদ্ধ।

৪। আমরা এমনিতেই ভাতের পাতে প্রায় সময় লেবু,কাঁচা লঙ্কা মেখে খাই প্রিটিকিনী রান্নায় ও লেবু-কাঁচা লঙ্কা দিয়ে খেলে,খেতে অতি সুস্বাদু হবে।

৫। প্রায় প্রত্যেক রান্নাতেই গুঁড়ো মসলার ব্যবহারের কথা থাকবে।যারা বাটা মসলা ব্যবহারে অভ্যস্ত তারা সমপরিমাণে বাটা মসলায় ব্যবহার করবেন।গুঁড়ো মসলা ও ব্যবহার করার আগে সামান্য পানিতে ভিজিয়ে নিবেন।জিরে,দনে ইত্যাদি যদিও গুঁড়ো না বলা থাকে তবে গোটা বুঝতে হবে।

৬। মাংস মাছ প্রভৃতি রান্নায় গরম মসলা ব্যবহার করলে খুবই ভাল হয়।অন্যান্য রান্না যদি মসলা না দেন তবে গোলমরিচ ও অন্যান্য মসলা একটু বেশি দেবেন।

৭। যে সমস্ত সবজি ব্যবহারের কথা থাকবে যদি সবসময় তা পাওয়া না যায় তাহলে নিজেরা বিবেচনা করে তার কোন কাছাকাছি বিকল্প ব্যবহার করবেন।যেমন পেঁয়াজ কলির বদলে শুধু পেঁয়াজ কুচি অথবা টমেটোর বদলে ভিনিগার বা পেঁয়াজ কুচি আর লেবুর রস ব্যবহার করতে পারেন।

৮। দেশী রান্নায় garnishing অর্থাৎ রান্নার পর পরিবেশনের আগে তার উপর মসলা বা অন্য কিছু ছড়িয়ে দেওয়ার রীতি খুব একটা নেই।কিন্তু garnish করে পরিবেশন করলে দেখতে ভারি সুন্দর লাগে আর খেতে আরো সুস্বাদু হয়।সেজন্য বেশিরভাগ প্রিটিকিনী রান্নাতেই garnish অন্তর্ভুক্ত।

সকালের খাবার/নাস্তা

১। আটার পাউরুটি(মাখনের বদল এর উপরে স্কিমড় মিল্ক এর ছানা দিয়ে,গোলমরিচ/খেজুরের ছোট টুকরো/২-৪ টি কিসমিস ছড়িয়ে)+কলা/আপেল+স্কিমড় মিল্ক।

২। ছাতু/চিড়া/মুড়ি+স্কিমড় মিল্ক+কলার টুকরো+২-৪ টি খেজুর।

৩। সুজিঃশুকনো কড়াইতে প্রথমে সুজি ভেজে নিন।তারপর তাতে পরিমাণমতো স্কিমড় মিল্ক মিশিয়ে দিন।চিনির বদলে কলা টুকরো করে কেটে দিবেন।সঙ্গে ২-৪ টি কিসমিস বা খেজুর দিলে খুব ভালো হয়।

৪। পাউরুটি+স্কিমড় মিল্ক+কলা (পাউরুটি টোস্ট করে গরম স্কিমড় মিল্কের মধ্যে দিয়ে সঙ্গে কলা স্লাইস করে কেটে দিন)।

৫। তুষ যুক্ত আটার রুটি+আলুর দম বা অন্য কোন আলু-লালিত খাবার।

Check Also

পুরুষের গুণাগুণ বিচার

সর্বতােভাবে সুখী হয় সেই ব্যক্তিই যার কণ্ঠস্বর , বুদ্ধি ও নাভি গভীর । হয় । …