পুরুষের গুণাগুণ বিচার

সর্বতােভাবে সুখী হয় সেই ব্যক্তিই যার কণ্ঠস্বর ,  বুদ্ধি ও নাভি গভীর । হয় ।  বক্ষ , শির ও ললাট যার প্রশস্ত সে হয় লক্ষ্মীবান পুরুষ । বিশাল কটিদেশ সম্পন্ন পুরুষ বহু পুত্রের জনক হয় । আবার দীর্ঘ বাই বিশিষ্ট পুরুষ নরশ্রেষ্ঠ ও সুখসম্পন্ন হয় । যে পুরুষের বক্ষস্থল বিশাল সে পুরুষ ধনবান হয় , যে পুরুষের শিরােদেশ বিশাল সেই পুরুষ নরলােকে স্থান পায় ।

যে পুরুষের কাজ না করেও পদতল কঠিন , পথ চলেও যায় পদতল । কোমল সেই পুরুষ নিঃসন্দেহে সুখী হয়ে থাকে । স্কুল শিশ্ন সম্পন্ন পুরুষ সুখী হয় , দীর্ঘ শিশ্ন পুরুষ দুঃখ পায় , কৃশ শিশ্ন সম্পন্ন পুরুষ সৌভাগ্যবান হয়ে থাকে ।

যে পুরুষের নেত্র যুগল স্নিগ্ধ , সে হয় সৌভাগবান । যার দন্ত সিদ্ধ , সে । ভালাে ভালাে খাদ্য ভােজন করতে পারে । হস্ত স্নিগ্ধ পুরুষ হয় ঐশ্বর্যশালী । এবং যে পুরুষের পদযুগল স্নিগ্ধ হয় সে যানবাহন লাভ করে ।

যদি পুরুষের ভুরু দুটির মধ্যে রক্তবর্ণ রেখা দেখা যায় তাহলে সে হয় বিশাল ঐশ্বর্যশালী ও সুখী।যদি ভুরুর ওপর দিকে নীলবর্ণ রেখা দেখা যায় তাহলে সেই পুরুষ হয় দুঃখী । যে পুরুষের নাকের ডগায় বর্তুলাকার চিহ্ন এবং সেই চিহ্ন ঈষৎ শুক্র আভাবিশিষ্ট হয় তাহলে সেই পুরুষ সুখ ভােগ লাভ করে । শুক্ৰবৰ্ণ ললাটবিশিষ্ট পুরুষ আজীবন সুখে কালাতিপাত করে । কামশাস্ত্রে এদের গুণী বলা হয় ।

যে পুরুষের আজীবন দুঃখ কষ্ট ভােগ করে তাতে কোন সন্দেহ নেই । নাসামুলে যুক্ত অধর যে পুরুষের সেই পুরুষ আজীবন কষ্টভােগ করে । পদ্মপুরাণে একথাই বলা হয়েছে ।যে পুরুষের হাতে অনামা ও মধ্যমা এই দুটি আঙ্গুল পর্বের মধ্যস্থলে । দীর্ঘাকতি কোন চিহ্ন থাকে এবং সেই চিহ্ন চিক্কন হয় তাহলে সেই পুরুষ । আজীবন মহাসুখে দিন কাটায় ।যে পুরুষের অঙ্গুষ্ঠেয় মূলদেশে কৃষ্ণবর্ণ রেখা দেখা যায় সেই পুরুষের । ভাগ্যে অশেষ দুঃখ যন্ত্রণা থাকে ।

মাছের লেজের চিহ্ন থাকে যে পুরুষের হাতের তালুতে এবং সেই । চিহ্নের নীচের দিকে বাঁকানাে ধুসর বর্ণ দেখা যায় , তাহলে সেই পুরুষকে দুঃখে দিন কাটাতে হয় ।যদি কোন পুরুষের হাতের তর্জনী আঙুলের অগ্রভাগে গােলাকার চিহ্ন থাকে তাহলে তাকে সুখ ও দুঃখের মধ্যে কালাতিপাত করতে হয় ।আয়রেখার কাছে যদি কোন পাতীবৰ্ণ দেখা যায় তাহলে সেই পুরুষ । শুভ লক্ষণ যুক্ত । সেই পুরুষ আজীবন সুখে দিন কাটায় ।যদি কোন পুরুষের হাতে পদচিহ্ন তােরণ চিহ্ন বা ধনু চিহ্ন থাকে , সেই । পুরুষ সম্পর্কে শাস্ত্রকাররা বলেছেন যে তারা আজীবন সুখে থাকে । পুরুষের হাতে কনিষ্ঠ আঙুলের মুলদেশ থেকে তর্জনী আঙুলের মুল পর্যন্ত যে রেখা দেখা যায় , যদি এর কোন স্থান বিচ্ছিন্ন না হয়ে যায় তাহলে । সে হয় ঐশ্বর্যশালী এবং সুখী ।যব রেখা যে পুরুষের হাতে অঙ্গুষ্ঠাঙ্গুলিতে দেখা যায় সেই পরুষ হয় পরম সুখী ।

Check Also

মসৃণ ত্বকের ফেস প্যাক

অনেকে বলে থাকেন তাদের ত্বক তেলতেলে অথবা রুক্ষ । মূলত এই দুটোই আসলে সৌন্দর্য হানীকর …